সেরা ৫টি প্লে স্টোর গেম!

সেরা ৫টি প্লে স্টোর গেম!

বর্তমানে প্রযুক্তির যুগ। আগের যুগে মাঠে-ঘাটে বাইরে বিভিন্ন স্থানে খেলার জায়গায় বর্তমানে খেলাধুলা চলে এসেছে ডিজিটাল ডিভাইসগুলোর মধ্যে। এই যুগের অনেক মানুষ বাইরে খেলাধুলা করার চেয়ে মোবাইলে বা কম্পিউটারে গেম খেলে সময় কাটাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। বর্তমানে সবার কাছে কম্পিউটার না থাকলেও স্মার্টফোন কিংবা অ্যান্ড্রোয়েড ফোন সবার কাছেই সহজলভ্য। যার দরুন কম্পিউটার গেমের চেয়ে মোবাইল গেমের জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। সেই সাথে মোবাইল গেম ব্যবহারকারীর সংখ্যাও বেশি। আমরা জানি, মোবাইল গেমসহ মোবাইলের অন্যান্য অ্যাপ গুগল প্লে স্টোর অথবা অ্যাপ স্টোর হতে ডাউনলোড করতে হয়। তো আজকের এই আর্টিকেলে আমরা— জনপ্রিয় ও সেরা ৫টি প্লে স্টোর গেম সম্পর্কে বিস্তারিত জানব! চলুন তাহলে শুরু করা যাক—

সেরা ৫টি প্লে স্টোর গেম:

পাবজি মোবাইল (PUBG MOBILE):

পাবজি বর্তমান প্রজন্মের কাছে খুবই জনপ্রিয় একটি গেম। এটি লেভেল ইনফিনিটির হাত ধরে ২০১৭ সালে প্রথম বাজারে আসে ডেস্কটপ সংস্করণে। এরপর, ২০১৮ সালে আসে অ্যান্ড্রয়েড বা মোবাইল সংস্করণ। পাবজি এখন অবধি গুগল প্লে স্টোরে প্রায় ৫০০ মিলিয়নের বেশি বার ডাউনলোড হয়েছে। এছাড়াও গুগল প্লে স্টোরে ৫ এর মধ্যে এর রেটিং ৪.৩ এবং সেই সাথে ৪২ মিলিয়ন ইউজার এটির রিভিউ দিয়েছেন। এর রয়েছে অসাধারণ রিয়েলস্টিক গ্রাফিক্স। বলা যায়, বিশ্বের গেমিং ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন এক অধ্যায়ের সূচনা করেছে এই পাবজি।

পাবজি বা প্লেয়ার আননোন’স ব্যাটলগ্রাউন্ড গেমটি মূলত একটি ব্যাটল রয়্যাল গেইম। অর্থাৎ, এই গেমের মূল লক্ষ্য হলো অন্য খেলোয়াড়দের ঘায়েল করে নিজেকে শেষ অবধি টিকিয়ে রাখা। উল্লেখ্য, পাবজির একটি অনলাইন গেমে একত্রে প্রায় ১০০ জন খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করতে পারে এবং এদের প্রত্যেকেরই লক্ষ থাকে সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র গেম হতে সংগ্রহ করে প্রতিপক্ষকে মেরে ফেলা। এই গেমে নিজে ব্যতীত বাকি ৯৯ জনই থাকে প্রতিপক্ষ হিসাবে। আবার, টিম হিসাবে খেলা যায় এই পাবজি। সেক্ষেত্রে কয়েকজন মিলে এক টিম হয়ে অন্য টিমকে ঘায়েল করে এবং নিজ টিমের সদস্যদেরও বিভিন্ন সময় রক্ষা করে গেইমাররা।

পাবজি গেমে টিকে থাকতে কেবল সেরা অস্ত্রই যথেষ্ট নয়। সেই সাথে প্রয়োজন পড়ে রণকৌশল ও উপস্থিত বুদ্ধির। এই গেমের ভেতরের অস্ত্র হতে সবই প্রায় বাস্তবসম্মত, যার দরুণ পাবজি স্ট্রিমারদের কাছেও বেশ জনপ্রিয়। এই গেমের অসাধারণ গ্রাফিক্স, খেলার আবহাওয়া ও ধরন সব মিলিয়ে এই গেম খেলার অভিজ্ঞতা হয় দারুণ।

⏩ আরও পড়ুন: জনপ্রিয় পাঁচটি ফ্রি ভিপিএন!

পাবজি কেবল একটি গেম নয়, এটি অনেকের আয়ের উৎস হয়েও ওঠেছে। নানা সময় পাবজি নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আয়োজন করা হয় বিভিন্ন চ্যাম্পিয়নশিপের। যাতে মেলে বেশ মোটা অংকের টাকা।

এই পাবজির প্ল্যাটফর্ম ভেদে বেশ কয়েকটি সংস্করণ বা ভার্সন রয়েছে। কম্পিউটার বা ডেস্কটপ এবং কনসোলে খেলতে হলে গেমারকে গুনতে হয়ে টাকা। তবে মোবাইল ভার্সন বা সংস্করণ একদম ফ্রি, যে ভার্সন গুগল প্লে স্টোর হতে অনায়াসে ডাউনলোড করা যাবে। এছাড়াও যারা টাকা খরচা ছাড়া ডেস্কটপ গেমের অভিজ্ঞতা পেতে চায়, তারা মোবাইল সংস্করণের ইমিউলেটর দিয়ে ডেস্কটপে খেলেন।

ফ্রি ফায়ার (Garena Free Fire):

গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার বা ফ্রি ফায়ার অন্যতম একটি জনপ্রিয় মোবাইল গেম। এটি একটি যুদ্ধ গেম। এই গেমটি তৈরি করেছে ১১১ডট স্টুডিয়ো এবং এটি বাজারে আনে গ্যারেনা ইন্টারন্যাশনাল। এখন অবধি গেমটি গুগল প্লে স্টোরে ডাউনলোড হয়েছে প্রায় ১ বিলিয়নের বেশি। এছাড়াও গেমটিতে গুগল প্লে স্টোরে ৫ এর মধ্যে রেটিং আছে ৪.৩ এবং প্রায় ১০৫ মিলিয়ন ইউজার রিভিউ দিয়েছে।

বাজারে ২০১৭ সালে গেমটির প্রথম সংস্করণ আসে। ফ্রি ফায়ার গেমেও অন্য খেলোয়াড়দের হত্যা করতে হয় এবং হত্যার জন্য বিভিন্ন অস্ত্র ও সরঞ্জাম খুঁজে নিতে হয়। এক্ষেত্রে একটি দ্বীপে প্যারাশুট থেকে পড়ে ৫০ জন খেলোয়াড় একত্রে খেলে গেমটি এবং সবাই চায় নিজেকে প্রথম স্থানে দেখতে। অর্থাৎ নিজেকে শেষ অবধি টিকিয়ে রাখতে।

উল্লেখ্য ফ্রি ফায়ার গেমটি তার জনপ্রিয়তার জন্য ‘সেরা জনপ্রিয় ভোট গেম’ পুরস্কার জিতেছে।

ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস (Clash of Clans):

মোবাইল গেমের মধ্যে অন্যতম আরেকটি জনপ্রিয় গেম হলো ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস। এটি একটি স্ট্র্যাটেজি গেম, যার দরুণ অনেক সময় নিয়ে এই গেম খেলতে হয়। এটি গুগল প্লে স্টোরে প্রায় ৫০০ মিলিয়নের বেশি ডাউনলোড হয়েছে এবং এর রেটিং ৫ এ ৪.৪। এছাড়াও প্রায় ৫৩ মিলিয়ন ইউজার গেমটির রিভিউ দিয়েছেন। ২০১২ সালে এটি সুপারসেলের হাত ধরে বাজারে আসে এবং ২০১৩ সালে গুগল প্লে স্টোরে মুক্তি পায়।

ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস সাধারণত একটি কৌশলগত গেম। গেমের শুরুতেই গেমার একটি গ্রাম পায়। ওই গ্রামে বিভিন্ন ঘর ও বিভিন্ন স্থাপনা থাকে এবং গ্রামটির মূল অংশ ‘টাউনহল’। মূলত এই টাউনহলের উন্নয়ন করলেই বিভিন্ন সুবিধা পায় গেমার। তাছাড়াও এই গেমের অন্যতম মজার অংশ হলো, গেমার অন্যের গ্রামে আক্রমণ করে স্বর্ণ, এলিক্সার ও ডার্ক এলিক্সার আনতে পারে।

⏩ আরও পড়ুন: যেসব অ্যাপস কখনোই ব্যবহার করবেন না!

আর এই গেম একত্রে ৫০ জন দল বা টিম গঠন করে খেলতে পারে, এই দলকেই মূলত বলা হয় ক্ল্যান। তো একটি ক্ল্যানের বা দলের কমপক্ষে ৫ জন অন্য ক্ল্যানে আক্রমণ করে ক্ল্যান যুদ্ধ করতে পারে এবং গেমের ফলাফল যুদ্ধে অংশগ্রহণ করা সকল সদস্য সমান ভাবে ভোগ করতে পারে। আর এই ক্ল্যান যুদ্ধই এই গেমের জনপ্রিয়তার মূল চাবিকাঠি।

লুডু স্টার (Ludo STAR):

লুডু স্টার অনলাইন জগতে অন্যতম জনপ্রিয় একটি গেম। এই গেমটি ২০১৭ সালে গেমবেরি ল্যাবস এর হাত ধরে বাজারে আসে। যদিও এর আগেও গুগল প্লে স্টোরে অনেক লুডু গেম ছিল। কিন্তু, এটি বিশেষ কিছু ফিচার নিয়ে এসেছিল।

এই লুডু স্টার গেমটি এখন অবধি গুগল প্লে স্টোরে ১০ মিলিয়নের বেশি ডাউনলোড হয়েছে এবং এটির ৫ এর মধ্যে ৪.২ রেটিং রয়েছে। এছাড়াও প্রায় ৯০৫কে ইউজার রিভিউ দিয়েছেন এই গেমকে। তবে, মাঝখানে এই গেমটি গুগল প্লে স্টোরে ছিল না এবং এটি কোম্পানিটির সাইট হতে ডাউনলোড করতে হতো। বর্তমানে আবার গুগল প্লে স্টোরে যুক্ত হয়েছে! এছাড়াও এরা নিত্য নতুন সব ফিচার যোগ করেছে।

প্রাচীন লুডু খেলার মতোই এর নিয়ম। কেবল পরিবর্তন অনলাইনে ফ্রেন্ড বা আননোন ব্যক্তির সাথে খেলা যায়। এছাড়াও এইখানে জেমস, নানা ডাইস কালেক্টসহ বিভিন্ন বিষয় রয়েছে। রয়েছে ফ্রেন্ডেদের সাথে চ্যাটিং ব্যবস্থা। টিম আপ লুডু খেলার জন্যই মূলত লুডু স্টার বেশি জনপ্রিয় ছিল। তবে মাস্টার নামক একটি ধরন পরিবর্তন করে অ্যারো মুড আনার ফলে অনেক ইউজার লুডু স্টার খেলা বাদ দিয়েছে। তবে ক্লাসিক বা অ্যারো দুইটিই অন্যান্য লুডু গেমের তুলনায় আকর্ষণীয়। তাই লুডু প্রেমীরা লুডু স্টারের প্রতিই বেশি ঝুঁকেন এখনো।

ক্যান্ডি ক্রাশ সাগা (Candy Crush Saga):

এটি একটি ম্যাচ থ্রি পাজেল গেম। এটিও নেট দুনিয়ায় বেশ জনপ্রিয় একটি গেম। এই গেমটি খুবই সাধারণ একটি গেম। ক্যান্ডি ক্রাশ গেমটি এখন অবধি ১ বিলিয়নের বেশি ডাউনলোড হয়েছে এবং এটির গুগল প্লে স্টোরে ৫ এর মধ্যে ৪.৪ আছে। এছাড়াও প্রায় ৩২ মিলিয়ন ইউজার এর রিভিউ দিয়েছে। ২০১৪ সালে কিং নামক একটি কোম্পানি এটিকে বাজারে আনেন।

এই গেম খেলার তেমন কড়া নিয়ম-টিয়ম নেই। কেবল তিনটি রঙ ম্যাচ করতে পারলেই টাস্ক পূরণ করে সাপের মতো আঁকাবাঁকা লেভেল পার করা যায়। এটিকে অনেকে বুদ্ধির গেমও বলে থাকে। ব্রেইন এক্সারসাইজের জন্য এটি দারুণ একটি গেম!

*********

প্রিয় পাঠক, এতক্ষণ আমরা জানলাম সেরা ৫টি প্লে স্টোর গেম সম্পর্কে। যদিও কার কোন গেম পছন্দ তা নির্ভর করে তার নিজের ওপর। এছাড়াও অন্যান্য জনপ্রিয় গেমগুলোর মধ্যে রয়েছে হেই ডে, ফ্যামিলি আইসল্যান্ড, হোমস্কেপ, গার্ডেনস্কেপ, জম্বি ক্রাশ, মেকাপ প্রজেক্টওভার, ডব্লিউসিসি২, ডিএলএস, রিয়েল ক্রিকেট, ইত্যাদি।

⏩ আরও পড়ুন: গুরুত্বপূর্ণ ৭টি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস!

যাই হোক, আজকের মতো এখানেই। আর যদি এই আর্টিকেলটি ভালো লাগে তবে অবশ্যই অন্যদের সাথে শেয়ার করবেন এবং এই ধরনের আরও আর্টিকেল পেতে ‘টেকউইকি২৪’ এর সাথেই থাকুন।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:

মন্তব্য করুন: